Thursday , March 21 2019
সর্বশেষ
Home / কৃষি গবেষনা / জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার সদর দপ্তরে সিকৃবির রুয়েল

জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার সদর দপ্তরে সিকৃবির রুয়েল

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী মোঃ  রুয়েল মিয়া ইতালিতে একটি বৈজ্ঞানিক আইডিয়া উপস্থাপনা করার জন্য ইতালির রোম শহরের উদ্দ্যেশ্যে বাংলাদেশ ত্যাগ করেছেন। ডিসেম্বরের ১০-১৪ তারিখে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ফিস ফোরাম ২০১৮ তে তিনি তার প্রদর্শনীটি উপস্থাপন করবেন। তার এই সফরের সমস্ত ব্যয় বহন করবে আয়োজক সংস্থাটি। জানা গেছে, এটাই সিকৃবি থেকে কোন শিক্ষার্থী প্রথম বিদেশ যাচ্ছেন আন্তর্জাতিক কোন সম্মেলনে যোগ দিতে এবং পূর্ণ তহবিল পেয়ে।

উল্লেখ্য গত মে মাসে মোঃ রুয়েল মিয়া (২৪) উদ্ভাবনি একটি ধারনার উপর সারসংক্ষেপ GFCM (General Fisheries Commission for the Mediterranean) এর ওয়েবসাইটে জমা দেন বৈজ্ঞানিক পোস্টার উপস্থাপনার জন্য।তার উদ্ভাবনী ধারণাটি ছিল ভূমধ্যসাগর এবং ব্ল্যাক সাগর ব্যাবস্থাপনার উপর। পরে সেটি গৃহীত হয় যথাযথ কর্তৃপক্ষ দ্বারা এবং তাকে ইমেইলের মাধ্যমে নিশ্চিত করা হয়।

এরই সুত্রধরে, ১০-১৪ ডিসেম্বর জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি বিষয়ক সংস্থা FAO এর প্রধান কার্যালয় ইতালির রোমে তাকে আমন্ত্রন জানানো হয় তার উপস্থাপনাটি পেশ করার জন্য। উক্ত আমন্ত্রন পত্রে তাকে এটাও আশ্বস্ত করা হয় যে ফিস ফোরাম ২০১৮ তে উপস্থিত থাকার জন্য যাবতীয় সব খরচ তারা বহন করবে। পরে তিনি ইতালির ভিসার জন্য আবেদন করেন এবং ঠিক ১২ দিন এর মাথায় তিনি ভিসা পেয়ে যান।

মোঃ রুয়েল মিয়া এখন মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের উপকূলীয় ও সামুদ্রিক মাৎস্যবিজ্ঞান বিভাগে ড. মোহাম্মদ মাহমুদুল ইসলাম এর তত্ত্বাবধায়নে মাস্টার্স প্রথম সেমিস্টারে অধ্যয়নরত আছেন। এ ব্যাপারে তার কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, “তার ভবিষ্যৎ লক্ষ্য হচ্ছে একজন ভাল গবেষক হওয়া এবং বিশ্বের কাছে নিজের বিশ্ববিদ্যালয় তথা দেশের সুনাম বয়ে আনা। তিনি বিশ্বাস করেন যে শুধু সরকারি চাকরি পাওয়াটাই একটা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া ছাত্র-ছাত্রীর লক্ষ্য হওয়া ঠিক নয়। তিনি আরও বলেন যে, গবেষনা ক্ষেত্রে তার সবচাইতে বড় প্রেরণার উৎস হচ্ছেন তার শ্রদ্ধেয় শিক্ষক জনাব ড. মোহাম্মদ মাহমুদুল ইসলাম।

About Publisher

Check Also

যমুনার চরাঞ্চলে হাঁস পালন করে স্বাবলম্বী বহু পরিবার

সিরাজগঞ্জে শাহজাদপুরের যমুনা চরাঞ্চলে হাঁস পালনে বেকারত্ব দূর করেছে অনেকেই। চরাঞ্চলে হাঁস পালন করে স্বাবলম্বী …

One comment

  1. Many many dua….

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *