Thursday , December 13 2018
সর্বশেষ
Home / পোলট্রি / ডিমের যত পুষ্টিগুন…
Preparing food: hands cracking up a raw egg

ডিমের যত পুষ্টিগুন…

এম এ খালেকঃ ডিম আমাদের কাছে অতি পরিচিত একটি খাবার। ডিম খায়নি এমন মানুষ পাওয়া খু্ব কঠিন। ডিম একমাত্র খাবার যা ১০০% হজম হয়। তাই একে সম্পূরক খাবার বলা হয়। ডিমে ১০০ ভাগের মধ্যে ৬০ ভাগ সাদা অংশ এবং ৪০ ভাগ কুসুম। সাদা অংশে সম্পূর্নটা প্রোটিন থাকে। কুসুমের ভিতর প্রোটিন এবং লিপিড ও অন্যান্য উপাদান থাকে, যা শরীরে শক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এ ছাড়াও ডিমের অনেক গুন আছে যেমন:

খাদ্যগুন: ডিমে ভিটামিন-এ, ভিটামিন-বি২, বি৬, বি১২, ভিটামিন-ডি, ভিটামিন-ই ও ভিটামিন-কে পাওয়া যায় এবং ওমেগা-৩ পাওয়া যায়। যা শরীরের জন্য খুবই প্রয়োজন।

হার্ট অ্যাটাক: এটা ঠিক যে ডিমে উচ্চমাত্রার পাওয়া যায় প্রায় ২০০ মি.গ্রা.। কিন্তু মানুষের শরীরে দরকার ৩০০ মি.গ্রা.। অপরদিকে লিভার থেকে প্রতিনিয়ত কোলষ্টেরল বের হয় কিন্তু যখন ডিম বেশি খাওয়া হয় তখন লিভার থেকে কোলষ্টেরল কম বের হয়। ফলে এতে শরীরে কোনো প্রভাব পরে না। হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় এক জরিপে দেখা গেছে যারা নিয়মিত ডিম খায় তাদের হার্ট অ্যাটাকের ঝু্ঁকি কম। কেননা কোলষ্টেরলের ভিতর HDL থাকে যা রক্ত পরিবহনে সাহায্য করে এবং হার্ট অ্যাটাকের ঝুকি কমায়।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা: ডিমে Ig Y নামক antibody পাওয়া যায় যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে এবং বিভিন্ন ভাইরাস ও টক্সিন জাতীয় পদার্থকে ধ্বংস করে।

জৈবিক কার্যক্রম: ডিমে sterol থাকে যা পিত্ত রস নি:সরন করে এবং যৌন সংস্থারের জন্য খুবই উপকারী।

ওজন বৃদ্ধি: অনেকের একটা ভুল ধারনা অাছে যে ডিম খেলে ওজন বাড়ে। ডিমে ফ্যাট থাকে মাত্র ৫ গ্রাম আর একটা সুস্থ মানুষের দিনে ৫৫- ৮০ গ্রাম ফ্যাট প্রয়োজন। সুতরাং ওজন বাড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। তবে দিনে ৭-৮ টা করে ডিম খেলে সে ক্ষেত্রে ওজন বাড়ার সম্ভাবনা থাকে।

About Editor

Check Also

কারিগরি কর্মকর্তা পদে প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

এগ্রিভিউ২৪ জব ডেস্ক : পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (PKSF) এর সহযোগী সংগঠন প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির নিয়োগ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *