Monday , March 25 2019
সর্বশেষ
Home / পাঁচমিশালি / রাত পোহালেই ‘কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ’ নির্বাচন

রাত পোহালেই ‘কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ’ নির্বাচন

এগ্রিভিউ নিউজ ডেস্ক: অাজ রাত পার হলেই অাগামীকাল ২৩ নভেম্বর, শুক্রবার অনুষ্ঠিত হবে সারাবাংলার কৃষি সংশ্লিষ্ট সকল মানুষের অাশা-ভরসার প্রতীক কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ (কেঅাইবি) এর ২০১৯-২০ মেয়াদের নির্বাচন। নির্বাচন উপলক্ষ্যে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে প্রার্থীরা ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রচারণায়। ফেসবুক সহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ব্যাপক হারে চলছে প্রচারণার কাজ। প্রত্যেক প্রার্থী ভোটারদের কাছে তার নির্বাচনী ইশতেহার তুলে ধরে ভোট, দোয়া ও সমর্থন প্রত্যাশা করছেন।

কৃষিবিদদের নায্য অধিকার ও মর্যাদা প্রতিষ্ঠার এই নির্বাচনে “প্রফেসর ড. নীতিশ চন্দ্র দেবনাথ- মো. খায়রুল অালম (প্রিন্স)” ও  “ছালেহ অাহমদ- মো. মোয়াজ্জেম  হোসেন” নেতৃত্বাধীন ২ টি প্যানেল প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে। ৩৭ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় কমিটির জন্য উভয় প্যানেলেই রয়েছে হেভিওয়েট প্রার্থী। উভয় প্যানেলের প্রার্থীদের যোগ্যতা, জনপ্রিয়তা বিচার করলে নির্বাচনে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতার অাভাস পাওয়া যায়। অাসুন, উভয় প্রার্থীদের সম্পর্কে একটু বিচার বিশ্লেষণ করি।

প্রথমেই ধরা যাক, “প্রফেসর ড. নীতিশ চন্দ্র দেবনাথ- মো. খায়রুল অালম (প্রিন্স)” নেতৃত্বাধীন প্যানেলের কথা।এই প্যানেল থেকে সভাপতি পদে নির্বাচন করছেন চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিভাসু) প্রাক্তন উপাচার্য, কেআইবি এর সাবেক সভাপতি, ওয়ান হেলথ বাংলাদেশ এর কো-অর্ডিনেটর এবং স্বনামধন্য গবেষক প্রফেসর ড. নীতীশ চন্দ্র দেবনাথ। মহাসচিব পদে নির্বাচন করছেন কৃষি অধিদপ্তরের প্রকল্প পরিচালক ও কেঅাইবির বর্তমান মহাসচিব মো. খায়রুল অালম (প্রিন্স)। শুরু থেকেই নিজেদের সার্বজনীন দাবি করে অাসা এই প্যানেলে রয়েছে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬ জন উপাচার্য (৩ জন সাবেক ও ৩ জন বর্তমান), ২ জন মহাপরিচালক (মৎস্য অধিদপ্তর ও প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর), বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮ জন স্বনামধন্য প্রফেসর, ডজনখানেকের বেশি (১৫ জন) বিসিএস ক্যাডার এসোসিয়েশন লিডার এবং ৫ জন প্রভাবশালী রাজনীতিবিদ। প্রতিটি প্রার্থীর যোগ্যতা বিচার করলে মানতেই হবে, অাগামীকালের ভোটযুদ্ধে খুবই শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী এই প্যানেল।

এবার অাসি,  “ছালেহ অাহমদ- মো. মোয়াজ্জেম  হোসেন” প্যানেলের কথায়। এই প্যানেল থেকে সভাপতি পদে নির্বাচন করছেন মৎস্য অধিদপ্তরের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা (পরিচালক) কৃষিবিদ ছালেহ অাহমদ। মহাসচিব পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক (পার্সোনেল) ও বিসিএস (কৃষি) এসোসিয়েশনের মহাসচিব কৃষিবিদ মো. মোয়াজ্জেম হোসেন। এই প্যানেলের একটি উল্লেখযোগ্য দিক হলো বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রার্থী নির্বাচন। কৃষি সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের প্রার্থীর অন্তুর্ভুক্তি এই প্যানেলের সার্বজনীন ঘোষণার দাবিকে জোরালো করে তুলেছে। প্যানেলটিতে রয়েছে ২ জন উপাচার্য (১ জন সাবেক ও ১ জন বর্তমান), কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ৫ জন কর্মকর্তা, ৪ জন স্বনামধন্য প্রফেসর, ৩ জন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা, বিসিএস ক্যাডার এসোসিয়েশন লিডার, প্রভাবশালী রাজনীতিবিদ ইত্যাদি। এছাড়াও  প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর, মৎস্য অধিদপ্তর, বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশন, বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন কর্পোরেশন (বিএডিসি), কৃষি তথ্য সার্ভিস, বাংলাদেশ ভেটেরিনারি কাউন্সিল (বিভিসি) থেকে রয়েছে প্রার্থী যারা প্রত্যেকেই যোগ্যতার বিচারে শক্ত অবস্থানে রয়েছেন।

উভয় প্যানেলের শক্তিমত্তা বিচার করলে অাগামীকাল একটি কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচনের অাভাসই পাওয়া যায়। বিভিন্ন ক্যাম্পাস, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন প্রফেশনাল গ্রুপ সর্বত্র ছড়িয়ে পড়েছে নির্বাচনী আবহ। এদিকে, নির্বাচনের কমিশনের ঘোষণা অনুযায়ী, গতকাল (২১ নভেম্বর) রাত ১২ টায় শেষ হয়েছে সকল প্রকার নির্বাচনী প্রচারণা।

কে হবে অাগামীর কৃষিবিদ সমাজের কর্ণধার, এ নিয়ে শেষ মুহুর্তে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। সকল প্রশ্নের উত্তর মিলবে অাগামীকাল ১৩ সহস্রাধিক কৃষিবিদের ভোটাধিকার প্রয়োগের মাধ্যমে। সারাদেশে মোট ৫১ টি কেন্দ্রে সকাল ৯ টা থেকে শুরু হয়ে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত চলবে ভোটগ্রহণ।  নির্বাচনে যে বা যারাই জয়লাভ বা পরাজয় বরণ করুক তাতে কিছু যায় অাসেনা; বাংলার সকল কৃষিবিদদের চাওয়া, এমন একটি কমিটি যারা ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টার মাধ্যমে সকল কৃষিবিদদের নায্য অধিকার ও মর্যাদা প্রতিষ্ঠা, পেশার যাবতীয় সকল সমস্যার সমাধান, উৎকর্ষ সাধন সর্বোপরি কৃষিবিদদের সেবায় নিজেদেরকে নিয়োজিত রাখবে।

About Anik Ahmed

Check Also

ওয়াসিম হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবীতে সিকৃবিতে মানববন্ধন

অর্ঘ্য চন্দ, সিকৃবি প্রতিনিধি : ওয়াসিম আফনানকে  বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে হত্যার প্রতিবাদে আজও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *