Tuesday , February 19 2019
সর্বশেষ
Home / ক্যাম্পাস / বাকৃবিতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারামারি ও উত্তেজনা

বাকৃবিতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারামারি ও উত্তেজনা

বাকৃবি প্রতিনিধি: তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) দুটি হলের মধ্যে মারামারি ও উত্তেজনার ঘটনা ঘটেছে। শহীদ শামসুল হক হল ও শহীদ জামাল হোসেন হলের মধ্যে ওই ঘটনা হয়। তবে ঘটনাস্থলে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও হল প্রশাসনের কাউকে দেখা যায়নি।
জানা যায়, কিছুদিন পূর্বে তুচ্ছঘটনাকে কেন্দ্র করে শহীদ জামাল হোসেন হলের সরন ও তার বন্ধুরা মিলে শহীদ শামসুল হক হলের শাকিল নামের এক শিক্ষার্থীকে মারধর করেন। তারা উভয়ই কৃষি অনুষদের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। এ ঘটনার জের ধরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কামাল রঞ্জিত মার্কেটে (কে আর) দুই হলের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরের দিন শুক্রবার সন্ধার সময় ছাত্রী হলের সামনে শহীদ শামসুল হক হলের দ্বিতীয় বর্ষের ফুয়াদ নামের আরেক শিক্ষার্থীকে মারধর করেন শহীদ জামাল হোসেন হলের প্রথম ও দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীরা। এর কিছুক্ষণ পরেই বিশ্ববিদ্যালয়ের করিম ভবন এলাকায় সায়েম নামের আরেক শিক্ষার্থীকে মারধর করেন শহীদ শামসুল হক হলের শিক্ষার্থীরা। দুই হলের মধ্যে রাত্রী সাড়ে ১০ টা পর্যন্ত উত্তেজনা বিরাজ করে পরে সিনিয়রদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

বাকৃবির সহকারী প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো. তানভীর রহমান বলেন সিনিয়র-জুনিয়র সংক্রান্ত ব্যাপার। আমাদের কাছে লিখিত ও মৌখিক কোন ধরনের অভিযোগ এখন পর্যন্ত আসেনি। এ বিষয়ে শহীদ জামাল হোসেন হল ছাত্রলীগের সভাপতি দীপক হালদার বলেন কামাল রঞ্জিত মার্কেটে ঝামেলা হলে আমি আমার হলের আবাসিক শিক্ষার্থীদের হলে নিয়ে আসি। এ বিষয়ে শহীদ শামসুল হক হলের সভাপতি সেন্টু রহমান বলেন, ঘটনার পর আমি আহত ফুয়াদকে ও আমার হলের শিক্ষার্থীকে হলে নিয়ে এসে পরিস্থিতি শান্ত করি। এ বিষয়ে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. সবুজ কাজীকে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।

About Editor

Check Also

তিতাসে উপ সহকারি কৃষি কর্মকর্তাগনের ২য় শ্রেনীর মর্যাদা প্রাপ্তিতে দোয়া ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

“মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদান ডিপ্লোমা কৃষিবিদদের দ্বিতীয় শ্রেনির সম্মান” এ স্লোগান কে সামনে রেখে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *