Sunday , December 16 2018
সর্বশেষ
Home / এগ্রিবিজনেস / রাজধানীতে শুরু হয়েছে তিনদিনব্যাপী লেদার ও ফুটওয়ার প্রদর্শনী
জনাব আমির হোসেন আমু
মেলার প্রথম দিনে মাননীয় শিল্পমন্ত্রী জনাব আমির হোসেন আমু

রাজধানীতে শুরু হয়েছে তিনদিনব্যাপী লেদার ও ফুটওয়ার প্রদর্শনী

নিজেস্ব প্রতিবেদকঃ
বাংলাদেশের চামড়া ও ফুটওয়ার শিল্পের অবস্থা বিশ্বের দরবারে আরো ভালোভাবে তুলে ধরার লক্ষ্যে রাজধানী ঢাকার আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টার বসুন্ধরা্য় শুরু হয়েছে তিন দিনব্যাপী চতুর্থবারের মত শুরু হয়েছে “Bangladesh leather and footwear( BLF) expo 2018”। গত কাল ২৬ সে জুলাই শুরু হয়ে চলবে ২৮ শে জুলাই পর্যন্ত।
দেশী বিদেশী নানা প্রযুক্তি এবং পণ্য নিয়ে অংশ গ্রহণ করেছে ২২৩টিরও বেশি প্রতিষ্ঠান । দেশের কোম্পানীর পাশাপাশি বিদেশী কোম্পানীর সংখ্যা ছিল চোখে পড়ার মত।

গতকাল মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে অনুষ্ঠানের শুভ উব্দোধন করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। এই সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রকৌশলী জনাব মোঃ নজরুল ইসলাম খান পরিচালক (প্রকল্প পরিকল্পনা ও পরিবীক্ষণ) সহ অন্যান্য গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাননীয় শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেন, তৈরি পোশাক ও চামড়া শিল্প বাংলাদেশের অর্থনীতির দুটি শীর্ষ গুরুত্বপূর্ণ শিল্প খাত। রপ্তানি আয় কর্মসংস্থান বৃদ্ধি মূল্য সংযোজন ও জনগণের জীবন মানোন্নয়নে শিল্পখাত পুতির অবদান ব্যাপক হয়েছে। বাংলাদেশ তৈরি পোষাক রপ্তানি দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে আছে। দেশের মোট রপ্তানির ৮০ ভাগই আসে এই দুই শিল্প থেকে। world Footwear Yearbook 2016 এ তথ্য মতে জুতা উৎপাদনে বাংলাদেশ বিশ্বে অষ্টম স্থান অর্জন করেছে।

এই প্রদর্শনীতে বাংলাদেশ, ভারত, চীন, দক্ষিণ কোরিয়া, থাইল্যান্ড, ফ্রান্স, ইতালি, জাপান, জার্মানি, তুরস্ক, বেলজিয়াম, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের ১৩ টি দেশের ২২৩টি শিল্প উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছেন। সাড়ে চার শতাধিক স্টল এসব প্রতিষ্ঠান তাদের উৎপাদিত পণ্য প্রযুক্তি যন্ত্রপাতি প্রদর্শন করছে। এই প্রদর্শনী বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্প খাতের গুণগত পরিবর্তনে ইতিবাচক অবদান রাখবে। একই সাথে সংশ্লিষ্ট শিল্পখাতে সবুজ ও পরিবেশবান্ধব প্রযুক্তির স্থানান্তরে এই অবদান হবে সুদূর প্রসারী বলে মনে করেন বিশিষ্ট জনেরা।

সকাল ১০ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত এই মেলায় দর্শকদের জন্য থাকছে নানা নতুন নতুন শিল্প প্রযুক্তি, বিভিন্ন প্রতিষ্টানের চামড়াজাত পন্য কেনার সুযোগ। প্রথম দিন বৃষ্টি থাকা স্তত্বেও দর্শক এবং সংশ্লিষ্ট পেশাজীবীদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মত। অনেকে আসছেন উদ্দোক্ত্যা হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে।

দর্শকদের নজর কাড়ছে চামড়া ও পাদুকা শিল্পে ব্যবহৃত নতুন নতুন প্রযুক্তি এবং যত্নপাতি। চামড়ার তৈরি বিভিন্ন উপকরণ এবং পণ্যের যথেষ্ট সরবরাহ হয়েছে দেখে দর্শকরা কিনছেন এসব পণ্য। কয়েকটি এমন প্রতিষ্ঠানের সাথে কথা বলে জানা যায়, মেলা উপলক্ষে কম মূল্যে পণ্য বিক্রয় করা হচ্ছে।
মেলায় আগত দর্শক মোঃ জাহিদুল হাসান বলেন, এমন প্রদর্শনী দেখে বাংলাদেশের চামড়া শিল্পের ব্যপক উন্নতি বোঝা যাচ্ছে। এই মেলায় এসে অনেক কিছু জানলাম ভাল লাগল।

সামনে কোরবানীর পশুর চামড়ার যেন ভাল দাম থাকে এই ব্যাপারে দর্শকদের পক্ষ থেকে সরকার এবং এই শিল্পের নেতাদের প্রতি আবহান জানানো হয়।

About Mostafizur Rahman

Check Also

শেরপুরে কৃতি শিক্ষার্থী এবং মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ডিপ্লোমা কৃষিবিদদের সংবর্ধনা প্রদান

শেরপুরে কৃতি শিক্ষার্থী এবং মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ডিপ্লোমা কৃষিবিদদের সংবর্ধনা দিয়েছে শেরপুর জেলা ডিপ্লোমা কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *