Saturday , September 22 2018
সর্বশেষ
Home / প্রথম পাতা / জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৮ এর শুভ উদ্বোধন, চলবে ২৮শে জুলাই পর্যন্ত

জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৮ এর শুভ উদ্বোধন, চলবে ২৮শে জুলাই পর্যন্ত

“স্বয়ংসম্পুর্ণ মাছের দেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ” প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৮ শুরু হয়েছে। আজ রাজধানীর মৎস্য ভবনে এক জাঁকজমক র‍্যালীর মাধ্যমে এর শুভ উদ্বোধন করেন  মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রনালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব নারায়ণ চন্দ্র চন্দ।

র‍্যালীটি মৎস্য ভবন থেকে শুরু হয়। গুরুত্বপুর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জাতীয় প্রেসক্লাবে গিয়ে শেষ হয়। এই সময় বর্তমানে মাছ চাষে বাংলাদেশের সফলতা সম্পর্কিত প্ল্যাকড সম্মিলিত তুলে ধরা হয়। র‍্যালীতে মন্ত্রী, সচিব সহ মৎস্য জীবী কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

সকাল ১১ টায় মৎস্য ভবনের সম্মেলন কক্ষে এক সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্টিত হয়। এতে বক্তব্য তুলে ধরেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ জনাব নারায়ণ চন্দ্র চন্দ্র এমপি।

তিনি বলেন,  বাংলাদেশের প্রাণিজ আমিষের প্রায় ৬০ ভাগ আসে মাছ থেকে। দেশের জিডিপি’র ৩ দশমিক ৫৭ শতাংশ এবং কৃষিজ জিডিপি’র এক চতুর্থাংশেরও বেশি মৎস্য খাতের অবদান। মোট জনসংখ্যার প্রায় ১১ শতাংশ মানুষ প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে এই সেক্টরের উপর নির্ভরশীল।

মন্ত্রী বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশ মাছ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পর্ণ। প্রাকৃতিক উৎসের দিক দিয়ে পৃথিবীর মধ্যে তৃতীয় অবস্থানে।  মৎস্য খাতের এই উন্নোয়নকে ধরে রাখতে সরকারের অগ্রাধিকার মুলক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। জাটকা সংরক্ষণ ও ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন, অভ্যন্তরীণ জলাশয়ের আবাসস্থল উন্নয়ন এবং প্রাকৃতিক প্রজননক্ষেত্র সংরক্ষণ, পরিবেশ পরিবেশ ও সমাজবদ্ধ চিংড়ি চাষ সম্প্রসারণ। সামুদ্রিক মৎস্য সম্পদের সহনশীল আহরণ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা এবং স্বাস্থ্যকর নিরাপদ মাছ সরবরাহ এবং মৎস্য ও মৎস্যজাত পণ্য রপ্তানিসহ অন্যান্য কার্যক্রম।

মন্ত্রী আরো বলেন, জাতীয় অর্থনীতিতে মৎস্য খাতের অবদান পুষ্টি চাহিদা পূরণ রফতানি বৃদ্ধি কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে দারিদ্র বিমোচন ও দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে অবদান রাখার বিষয়ে দেশের জনগণকে আরো  সম্পৃক্ত করার লক্ষ্যে বরাবরের ন্যায় এবারও জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৮  উদযাপিত হতে যাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, দেশের মোট উৎপাদিত মাছের মধ্যে ইলিশের অবদান প্রায় ১২ শতাংশ।   দেশের জিডিপিতে ইলিশ ১ শতাংশেরও বেশি  অবদান রাখে। একক প্রজাতি হিসেবে ইলিশের অবদান সবচেয়ে বেশি। সম্পদের উন্নয়নের আনন্দলোকে নানামুখী সমন্বিত কার্যক্রম বাস্তবায়নের ফলে ইলিশের উৎপাদন আশাতীতভাবে বেশি পেয়েছে।  বিগত ২০০৮-০৯ অর্থবছরে অর্থবছরের উৎপাদন ছিল ২ লক্ষ ৯৯ হাজার মেট্রিক টন সেখানে ২০১৬-১৭ অর্থবছরে বৃদ্ধি পেয়ে ৪ লক্ষ ৯৬ হাজার মেট্রিক টনে উন্নীত হয়েছে।

বাংলাদেশের ইলিশ তার নিজস্ব স্বকীয়তা জি আই অর্জন করেছে। বিশ্বের মানুষ বাংলাদেশের ইলিশ বলে  জানে। বর্তমানে পাঁচটি ইলিশ অভয়াশ্রমের অভয়াশ্রমের সাথে বরিশাল জেলায় ষষ্ঠ অভয়াশ্রম ঘোষণার প্রাক প্রকাশনার গেজেট প্রকাশিত হয়েছে।

মন্ত্রী আরো বলেন বিপন্ন প্রজাতির সংরক্ষণ অবাধ প্রজনন ও বংশ বৃদ্ধির মাধ্যমে মাছের উৎপাদন বৃদ্ধি এবং  জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণের মৎস্য অভয়াশ্রম একটি কার্যকর ব্যবস্থাপনা কৌশল। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন নদ-নদী অভ্যন্তরীণ মুক্ত জলাশয় স্থাপিত  সুফলভোগীদের ব্যবস্থাপনায় পরিচালিত হচ্ছে। মৎস্য সম্পদের ভাণ্ডার হিসেবে পরিচিত হাওরের  উন্নয়নে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

জাল যার  জলা তার’ এই নীতি অনুসারে প্রকৃত জেলেদের মধ্যে জলমহাল ইজারা প্রদান, প্রাকৃতিক মৎস্য মজুদ বৃদ্ধির জন্য পোনা অবমুক্তকরণ ও বিল নার্সারি স্থাপন,  মৎস্য আহরণ কারীদের সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতাভুক্ত করণ এবং জলবায়ু সহনশীল মৎস্যচাষ প্রযুক্তি সম্প্রসারণ।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী আরো বলেন,  দেশে রাজনৈতিক অপ্রচলিত মৎস্যসম্পদ যেমন শামুক-ঝিনুক কাকড়া কুচিয়া ও মুক্তা উৎপাদন নিয়ে বিএফআরআই গবেষণা পরিচালনা করছে।  মিঠাপানির ঝিনুক ইমেজ মুক্তা উৎপাদনের মধ্যে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি সাধিত হয়েছে। গবেষণার মাধ্যমে পাবদা, গুলসা, মহাশোল, চিতল, ফলি, টেংরা, খলিশা ইত্যাদি ১৮ টি বিপন্ন প্রজাতির মাছের পোনা উৎপাদন, সংরক্ষণ ও চাষ। কৈ মাছের রোগ নিরাময়ের ভ্যাকসিন তৈরি অ্যাকোয়াপনিক পদ্ধতিতে স্বাস্থ্যসম্মত মাছ ও সবজি উৎপাদন, নোনা পানির টেংরা ও পারশে মাছের পোনা উৎপাদন করা হচ্ছে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নোত্তর পর্বে মন্ত্রী বলেন খামারিদের টিকিয়ে রাখার জন্য ফিডের দাম নিয়ন্ত্রণে সরকার নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। ক্ষুদ্র মাছ চাষীদের কম মূল্যে মাছের খাদ্য বিতরণও একটি প্রকল্প চালু আছে।

২০ শে জুলাই থেকে ২৮ শে জুলাই পর্যান্ত নানা কর্মসুচীর মাধ্যমে মৎস্য সপ্তাহ পালন হবে। রাজধানী সহ দেশের সকল জেলা উপজেলাতেগুলোতে এই ব্যাপারে ব্যপক কর্মসূচী পালন করা হবে  বলে জানা যায়। ২৮ শে জুলাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গভবনের লেকে মাছের পোনা অবমুক্ত করে সপ্তাহের সমাপনী ঘোষণা করবেন।

কৃষিবিদ মো. মোস্তাফিজুর রহমান
উপসম্পাদক, এগ্রিভিউ২৪.কম

About Mostafizur Rahman

Check Also

পবিপ্রবি বাঁধনের ছাত্রী হল শাখার উদ্যোগে বিনামূল্যে রক্তের গ্রূপ নির্ণয় কর্মসূচি

তাহজীব মন্ডল নিশাত, পবিপ্রবি: পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বেচ্ছায় রক্তদাতাদের সংগঠন বাঁধন এর কবি …

One comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *