Monday , July 23 2018
সর্বশেষ
Home / ক্যাম্পাস / প্রফেসর ড. এস. এম. লুৎফুল কবিরের বিভাগীয় প্রধান হিসাবে যোগদান

প্রফেসর ড. এস. এম. লুৎফুল কবিরের বিভাগীয় প্রধান হিসাবে যোগদান

বাকৃবি প্রতিনিধিঃ বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি অ্যান্ড হাইজিন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান হিসাবে যোগদান করেছেন প্রফেসর ড. এস. এম. লুৎফুল কবির । গত ১৯ শে জুন ২০১৮, মঙ্গলবার তিনি উক্ত বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব বুঝে নেন ।

প্রফেসর ড. এস. এম. লুৎফুল কবির ২০১১ সালের মার্চ মাসে জাপানের Osaka Prefecture University থেকে পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেন। তিনি একজন স্বনামধন্য মাইক্রোবায়োলজিস্ট এবং ফুড সেফটি বিশেষজ্ঞ । তার প্রায় ১০০টির মত বৈজ্ঞানিক প্রবন্ধ বিভিন্ন দেশী-বিদেশী জার্নালে/ বইয়ে প্রকাশিত হয়েছে। তিনি একটি সহজলভ্য প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেছেন যার মাধ্যমে স্বল্পমূল্যে মানুষ ও প্রাণী রোগসৃষ্টিকারী ব্যাকটেরিয়া সনাক্তকরণ করা যাবে।

সম্প্রতি বাকৃবির বাউরেস কর্তৃক সফল গবেষক হিসেবে স্বীকৃতি স্বরূপ Global Research Impact Award-2018 এ ভূষিত হয়েছেন প্রফেসর ড. এস. এম. লুৎফুল কবির। তিনি প্রায় ৫০ জন এম. এস ছাত্র-ছাত্রীর সুপারভাইজ করেছেন। বর্তমানে আট জন এম. এস ছাত্র-ছাত্রী এবং তিনজন পিএইচডির ছাত্র তার অধীনে গবেষণা করছে। তিনি ইতিমধ্যে ১৫টি গবেষণা প্রকল্প সফলতার সাথে পরিচালনা করেছেন।

বর্তমানে তার বেশ কিছু প্রকল্প চলমান রয়েছে। তিনি Asian-Australasian Journal of Food Safety and Security এর Editor-in Chief  হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তাছাড়া তিনি Veterinary Public Health and Food Safety Forum of Bangladesh এর এডমিনের দায়িত্ব পালন করছেন।

নরসিংদী জেলার মনোহরদী উপজেলার লেবুতলা ইউনিয়নের শরীফপুর গ্রামের মরহুম শেখ মোহাম্মদ জিন্নাত আলী মাস্টার এবং মিসেস লতিফা বেগমের একমাত্র ছেলে প্রফেসর ড. এস. এম. লুৎফুল কবির। ঊনার পিতা-মাতা দুজনই ঢাকার দুটি স্বনামধন্য স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকা ছিলেন। প্রফেসর ড. এস. এম. লুৎফুল কবিরের স্ত্রী একজন ব্যাংকার এবং তিনি এক কন্যা সন্তানের জনক।

তিনি সকলের কাছে দোয়া প্রার্থী।

About Editor

Check Also

শেকৃবিতে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে এগ্রিবিজনেসের গুরুত্ব বিষয়ক সেমিনার এবং এগ্রিবিজনেস সোসাইটির শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত

আবদুর রহমান রাফি: রাজধানীর শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শেকৃবি) বাংলাদেশের অর্থনীতিতে এগ্রিবিজনেসের গুরুত্ব এবং সম্ভাবনা বিষয়ক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *