Monday , June 25 2018
Home / প্রথম পাতা / ব্র্যাক-শেভরন জীবিকা প্রকল্পের উদ্যোগে বিশ্ব পরিবেশ দিবস ২০১৮ উদযাপন

ব্র্যাক-শেভরন জীবিকা প্রকল্পের উদ্যোগে বিশ্ব পরিবেশ দিবস ২০১৮ উদযাপন

পরিবেশ বিষয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে বিশ্ব পরিবেশ দিবসের জন্য জাতিসংঘ পরিবেশ কর্মসূচির এ বছরের নির্ধারিত স্লোগান হলো If you can’t reuse it, refuse it যার ভাবানুবাদ করা হয়েছে – প্লাস্টিক পুন: ব্যবহার করি, না পারলে বর্জন করি এবং প্রতিপাদ্য বিষয় হলো Beat Plastic Pollution যার ভাবানুবাদ করা হয়েছে-আসুন প্লাস্টিক দূষন বন্ধ করি’- এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ব্র্যাক সমন্বিত উন্নয়ন কর্মসূচির জীবিকা প্রকল্পের উদ্যোগে দিনব্যপী বিভিন্ন কর্মসুুচির মাধ্যমে মঙ্গলবার, ০৫ ই জুন ২০১৮ইং বিভাগীয় পরিবেশ অধিদপ্তর, সিলেট এর সাথে যৌথভাবে বিশ্ব পরিবেশ দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপন করা হয়। পরিবেশ অধিদপ্তর, সিলেট বিভাগের পরিচালক মোঃ ছালাহ্ উদ্দীন চৌধুরী সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট বিভাগীয় কমিসনার ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট রেঞ্জের উপ মহাপুলিশ পরিদর্শক মোঃ কামরুল আহসান, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার গোলাম কিবরিয়া, সিলেটের জেলা প্রশাসক নূমেরী জামান এবং সিলেট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ লুৎফর রহমান।
দিবসটি উদযাপনে ব্র্যাক এবং আইডিয়া’র সহযোগিতায় সিলেট জেলা সমবায় কার্যালয় কর্তৃক নিবন্ধিত সংগঠনের সদস্যবৃন্দ (নারী ও পুরুষ) এবং ব্র্যাক ও আইডিয়ার জীবিকা প্রকল্পের কর্মকর্তাবৃন্দ এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভায় অংশগ্রহন করেন। র‌্যালিটি জেলা প্রশাসকের কার্যালয় হতে শুরু হয়ে নগীরর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে এবং সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে গিয়ে শেষ হয়।


উল্লেখ্য, ব্র্যাক-শেভরন যৌথ উদ্যোগে এবং সহযোগী সংস্থা আইডিয়া’র বাস্তবায়নে অক্টোবর ২০১৫ হতে বৃহত্তর সিলেট অঞ্চলের ১১২টি গ্রাম উন্নয়ন সংগঠনের মাধ্যমে প্রায় ২০,০০০ দরিদ্র্য জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে এবং সাংগঠনিক সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে জীবিকা প্রকল্পের কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। অর্থনৈতিক উন্নয়নের পাশাপাশি জীবিকা প্রকল্পের অন্যতম লক্ষ্য হল নারীর উন্নয়ন, অংশগ্রহন ও ক্ষমতায়ন। জীবিকা প্রকল্পের অধীনে গ্রাম উন্নয়ন সংগঠনের গুলোতে মোট সদস্যে ৮০ শতাংশ নারী এবং এর পরিচালনা পর্ষদের মোট সদস্যের ৬০ শতাংশ নারী রয়েছেন। প্রকল্পের অধীনে ইতোমধ্যেই ১০৫৭ জন নারী ব্যবসায়ী উদ্যোক্তা হিসেবে প্রশিক্ষণ গ্রহনের পাশাপাশি প্রশিক্ষণ পরবর্তীতে তারা ব্যবসার সাথে যুক্ত হচ্ছেন। বিশেষ করে সিলেট সদর উপজেলায় মোট ৬০ টি গ্রাম উন্নয়ন সংগঠন রয়েছে যাহার অধিকাংশ সদস্যই নারী। এ সকল নারীরা পরিবেশ বান্ধব বিভিন্ন আয় বর্ধক মুলক কাজের সাথে সর্ম্পক্ত হয়েছে এবং পরিবারের আর্থিক সচছলতা আনয়নে জোরালো অবদান রাখছেন।

About Publisher

Check Also

ড.নিরঞ্জন কুমার সানাকে নতুন উপাচার্য নিয়োগ দেওয়ায় বশেফমুবিপ্রবিতে আনন্দ মিছিল

বশেফমুবিপ্রবি প্রতিনিধি : বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন ও প্রথম উপাচার্য নিয়োগ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *