Thursday , November 15 2018
সর্বশেষ
Home / প্রথম পাতা / বাড়বে সরপুঁটির উৎপাদন

বাড়বে সরপুঁটির উৎপাদন

মো. শাহীন সরদার, বাকৃবি প্রতিনিধিঃ থাই সরপুঁটি একটি বিদেশি প্রজাতির মাছ। সাধারত ৩-৪ মাসেই এর বাজারজাত করা যায় বলে দেশে এর চাহিদা অনেক। সরপুঁটির পোনা দেশের বিভিন্ন হ্যাচারিতে উৎপাদন করা হয়। কিন্তু ডিম থেকে পোনা উৎপাদনের সময় বেশির ভাগ পোনা পুরুষ মাছ হওয়ায় মাছের উৎপাদন অনেকাংশেই কমে যায় কারণ মা সরপুঁটির চেয়ে পুরষ সরপুঁটির বৃদ্ধির হার অনেক কম। তাই জীনতাত্ত্বিক উপায়ে সকল পোনাকে মা মাছ তৈরি করা সম্ভব হলে এর উৎপাদন বৃদ্ধি করা সম্ভব। মঙ্গলবার দুপুর ১২ টার দিকে মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের সম্মেলন কক্ষে ‘জিনতাত্বিক উপায়ে মা মাছ তৈরির মাধ্যমে থাই সঁরপুটির উৎপাদন বৃদ্ধির কৌশল’ বিষয়ক এক কর্মশালায় এসব কথা বলেন গবেষণার প্রধান গবেষক অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল ইসলাম সরদার।

তিনি আরও জানান, তার গবেষক দল জিনতাত্বিক উপায়ে এমন সরপুঁটির প্যারেন্ট (বাবা এবং মা মাছ) তৈরি করেছেন যাদের থেকে একশত ভাগ মা পোনা উৎপাদন করা যাবে। এতে রাজপুঁটির উৎপাদন অনেকাংশেই বৃদ্ধি পাবে এবং কৃষকরাও লাভবান হতে পারবে।

মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. গিয়াস উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ময়মনসিংহ জেলার মৎস্য অধিদপ্তরের উপ পরিচালক মো. মিজানুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় রিসার্স সিস্টেমের পরিচালক ড. এম এ এম ইয়াহিয়া খন্দকার। এছাড়াও কর্মশালায় ময়মনসিংহ অঞ্চলের বিভিন্ন কৃষি খামাড় ও মৎস্য হ্যাচারির মালিক এবং বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের (বিএফআরআই) বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 

মো. শাহীন সরদার
বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়,ময়মনসিংহ।
০১৭৩ ৭৭২১৬০৩।

About Shahin Sardar

Check Also

পেঁপে চাষের বৈজ্ঞানিক পদ্ধতি…

পেঁপে বাংলাদেশের একটি অন্যতম প্রধান ফল। কাঁচা পেঁপে সবজি হিসেবে এবং পাকা পেঁপে ফল হিসেবে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *