Wednesday , October 17 2018
সর্বশেষ
Home / প্রথম পাতা / আমার ক্যাম্পাস / dehorning এর মাধ্যমে ষাঁড়কে বিপদমুক্ত করলো পবিপ্রবি’র ভেট শিক্ষার্থীরা
dehorning করার আগে ও পরে

dehorning এর মাধ্যমে ষাঁড়কে বিপদমুক্ত করলো পবিপ্রবি’র ভেট শিক্ষার্থীরা

তাহজীব মন্ডল নিশাত, পবিপ্রবিঃ
পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়য়ের (পবিপ্রবি) ভেটেরিনারি টিচিং হাসপাতালে ৫০০ কেজি ওজনের দানবীয় ষাঁড়টিকে dehorning এর মাধ্যেম বিপদমুক্ত করা হয়।

সরেজমিন এ গিয়ে দেখা যায়, ষাড়টি ক্যাম্পাসের আশপাশের এলাকাজুড়ে মুক্তভাবে বিচরণ করতো। ষাঁড়টির শিং ক্রমান্বয়ে বাঁকা হয়ে চোখের পাশের (zygomatic bone) চামড়ার ভেদ করে ভেতরে ঢুকে গেছে। ব্যাপারটি ডিভিএম ১৩ তম ব্যাচের শিক্ষার্থীদের নজর কাড়ে। তখন তারা এএনএসভিএম অনুষদের মেডিসিন, সার্জারি এন্ড অবস্টেট্রিক্স বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. অসীত কুমার পাল ও সহকারী অধ্যাপক ড. লালমদ্দিন মোল্লা এর সহযোগীতায় dehorning করে ষাঁড়টিকে বিপদমুক্ত করা হয়।

“শিংটি ক্রমান্বয়ে বাড়তে থাকলে এক সময় তা স্কাল ভেদ করে ভিতরে ঢুকে যাওয়ার সম্ভাবনা ছিলো এবং এর ফলে ষাঁড়টির মৃত্যুও ঘটতে পারতো বলে agriview24.com কে জানান ড. অসীত কুমার পাল।”

About Tahzib Mondal

Check Also

ক্ষুধামুক্ত সমাজ গঠনে চাই কৃষিবান্ধব পদক্ষেপ ও খাদ্য অধিকার আইন চাই

বর্তমানে মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) অর্জিত হচ্ছে ৭% এর উপরে। বিগত মার্চ মাসে জাতিসংঘ বাংলাদেশকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *