Thursday , November 15 2018
সর্বশেষ
Home / প্রথম পাতা / আমার ক্যাম্পাস / প্রাণিসম্পদের অর্গানোগ্রাম বাস্তবায়ন না হলে সকল ক্লাস পরীক্ষা বন্ধ

প্রাণিসম্পদের অর্গানোগ্রাম বাস্তবায়ন না হলে সকল ক্লাস পরীক্ষা বন্ধ

এ. আর. রাফি, শেকৃবি প্রতিনিধি: প্রাণিসম্পদ সেক্টরে অর্গানোগ্রাম এমন একটি সুপরিচিত শব্দ যা প্রথম বর্ষে ভর্তি হওয়া একজন ছাত্র থেকে চাকুরীর শেষ পর্যায়ে চলে আসা একজন লাইভস্টক ক্যাডারের মুখে মুখে। সুস্থ্য-সবল, মেধাবী জাতি গঠনে ও দেশের প্রাণিজ আমিষের চাহিদা পূরণে প্রাণিসম্পদ সেক্টরের জনবল বৃদ্ধি একটি মূখ্য বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু অনেক বছর ধরেই নানা অজুহাতে বন্ধ হয়ে আছে প্রাণিসম্পদ সেক্টরের অর্গানোগ্রাম বাস্তবায়নের কাজ। অর্গানোগ্রাম বাস্তবায়ন ত্বরান্বিত করতেই রবিবার রাজধানীর প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর প্রাঙ্গণে বাংলাদেশ ভেটেরিনারি এসোসিয়েশন (বিভিএ) আয়োজন করে প্রতিবাদ সমাবেশ ও অবস্থান কর্মসূচি। আগামী জুন মাসের মধ্যে অর্গানোগ্রাম বাস্তবায়িত না হলে সব বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ক্লাস ও পরীক্ষা বন্ধ এবং সকল জেলায় প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাদের কর্মবিরতিতে যাওয়ার হুমকি দেন সংগঠনের নেতারা।

বাংলাদেশ ভেটেরিনারি এসোসিয়েশন (বিভিএ) আয়োজিত এ সমাবেশ ও অবস্থান কর্মসূচিতে যোগ দেন সারা বাংলাদেশ থেকে আগত ভেটেরিনারিয়ানরা। শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় সহ সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি পড়ুয়া ছুটে আসেন এ সমাবেশে। সহস্রাধিক লোকের সমাগমে বিভিএ’র সভাপতি এবং বাংলাদেশ জাতীয় চিড়িয়াখানার কিউরেটর ডা. এস এম নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ভেটেরিনারি ছাত্র ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন বিসিএসে লাইভস্টক ক্যাডার নেতৃবৃন্দ, বিসিএস লাইভস্টক ক্যাডার এসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোঃ মাহবুব আলম ফারুক, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ডা. মোঃ জাহাঙ্গীর আলম এবং সারাদেশ থেকে আগত ভেটেরিনারিয়ানরা।

বিভিএ মহাসচিব ড. মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান মোল্লা বলেন, “সারাদেশের ভেটেরিনারিয়ানদের প্রাণের দাবি দ্রুত বাস্তবায়িত না হলে দেশব্যাপি বৃহত্তর আন্দোলন কর্মসূচি গ্রহণ করা ছাড়া আর কোনো উপায় থাকবে না। আগামী জুন মাসের মধ্যে অর্গানোগ্রাম বাস্তবায়িত না হলে সারা বাংলাদেশের ভেটেরিনারিয়ানদের সঙ্গে নিয়ে কঠোর আন্দোলন করা হবে”।

এ সময় সকল ভেটেরিনারিয়ানরা স্লোগানের মধ্য দিয়ে তাঁর প্রতি সমর্থন জ্ঞাপন করেন। তিনি আরো বলেন, প্রাণিসম্পদ অধিদফতর একটি জনবল কাঠামো প্রণয়ন করে যৌথভাবে সকল মহলের সর্বসম্মতিক্রমে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে তা বিবেচনার জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করেন। কিন্তু লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, অজানা কারণে দিনের পর দিন বিভিন্ন অনুসন্ধানের নামে কালক্ষেপণ করা হচ্ছে।

বিকাল ৫ টায় প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. আইনুল হক সমাবেশে যোগ দিয়ে অর্গানোগ্রাম বাস্তবায়নে তাঁর চেষ্টার কথা জানান এবং আয়োজিত এ সমাবেশকে সাধুবাদ জানান। সমাবেশে যোগ দিয়ে ভেটেরিনারিয়ানদের এ দাবির সাথে একমত পোষন করেন কৃষিবিদ ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ (কেআইবি) এর সভাপতি কৃষিবিদ এ. এম. এম. সালেহ এবং মহাসচিব কৃষিবিদ খাইরুল আলম প্রিন্স।

সমাবেশ শেষে সংস্কারকৃত বিভিএ ভবনের উদ্বোধন করে কেআইবির সভাপতি কৃষিবিদ এ. এম. এম. সালেহ বলেন, “আমরা ভেটেরিনারিয়ানদের এ যৌক্তিক দাবির সাথে সহমত পোষণ করছি এবং যে কোন ধরনের প্রযোজনে কেআইবি পাশে থাকবে। প্রাণিসম্পদ সেক্টরের উন্নয়নে জনবল বৃদ্ধি করা অতীব জরুরী হয়ে পড়েছে বলে জানান তিনি। তিনি ভেটেরিনারিয়ানদের উত্তোরোত্তর সাফল্য কামনা করেন এবং বিভিএ ভবনের উদ্বোধন ঘোষনা করেন।

About Mostafizur Rahman

Check Also

অাগামীকাল গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে শুরু হতে যাচ্ছে ৪র্থ অান্তর্জাতিক “পিপলস হেলথ এসেম্বলি-২০১৮”

অনিক অাহমেদ, গণ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি: “এখনই সবার জন্য স্বাস্থ্য” প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে অাগামীকাল থেকে শুরু …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *