Thursday , November 15 2018
সর্বশেষ
Home / ক্যাম্পাস / শেকৃবির শিক্ষার্থীদের কৃত্রিম প্রজনন ও ঘাস উৎপাদন কেন্দ্র পরিদর্শন

শেকৃবির শিক্ষার্থীদের কৃত্রিম প্রজনন ও ঘাস উৎপাদন কেন্দ্র পরিদর্শন

শেকৃবি প্রতিনিধিঃ রাজধানীর শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শেকৃবি) অ্যানিম্যাল সায়েন্স ও ভেটেরিনারী মেডিসিন অনুষদের শিক্ষার্থীরা সাভারে অবস্থিত কেন্দ্রীয় গো-প্রজনন ও দুগ্ধ খামারের কৃত্রিম প্রজনন ও ঘাস উৎপাদন কেন্দ্র পরিদর্শন করেন। তত্ত্বীয় জ্ঞানের পাশাপাশি ব্যবহারিক জ্ঞান অর্জনের জন্য বৃহস্পতিবার (১ মার্চ) তারা এই শিক্ষা ভ্রমণে যান। এতে অ্যানিম্যাল নিউট্রিশন, জেনেটিক্স ও ব্রিডিং বিভাগের অধ্যাপিকা ডা. লাম ইয়া আসাদ ও ফার্মাকোলজি ও টক্সিকোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপিকা রুপালী আক্তার এবং লেভেল ৪ ও সেমিস্টার ২ এর ৪৭ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন।

ভ্রমণকারী শিক্ষার্থীদের মাঝে মশিউর রহমান বলেন, “আমরা আজকের এই শিক্ষা ভ্রমণের মাধ্যমে আমাদের একাডেমিক জ্ঞানের পরিধি আরো বাড়াতে পেরেছি। কৃত্রিম প্রজনন ও ঘাস উৎপাদন কেন্দ্রে আমরা ৮ টি প্রোভেন বুল (সার্টিফাইড বুল বা ষাড়) দেখেছি যাদের সিমেন থেকে ভাল মানের গরু উৎপাদন করা সম্ভব। এছাড়াও শতাধিক ট্রায়াল বুল দেখতে পেয়েছি ও সিমেন এনালাইসিসের পদ্ধতি সম্পর্কে অবগত হয়েছি।”

কৃত্রিম প্রজনন ও ঘাস উৎপাদন কেন্দ্রের সহকারী পরিচালক ডা. মিয়া মো. জিল্লুর রহমান বলেন, “আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে বাছাইকৃত ষাড় থেকে সিমেন সংগ্রহ করে তার গুণগত মান নির্ণয় করে খামারীদের হাতে ভাল মানের সিমেন পৌছে দেওয়া ও উন্নত জাতের গরু তৈরি করা। যেগুলো আমাদের দেশের আবহাওয়ার সাথে খাপ খাওয়িয়ে ভাল উৎপাদনে সাহায্য করেব।”

অ্যানিম্যাল নিউট্রিশন, জেনেটিক্স ও ব্রিডিং বিভাগের অধ্যাপিকা ডা. লাম ইয়া আসাদ বলেন, “শিক্ষার্থীদের একাডেমিক জ্ঞানকে পরিপূর্ণ করার লক্ষ্যে আজকের এই ট্যূরের আয়োজন করা হয়। এর ফলে শিক্ষার্থীরা তাঁদের একাডেমিক জ্ঞানকে ফিল্ড লেভেলের ব্যবহারিক জ্ঞানের সাথে কাজে লাগিয়ে দেশের প্রাণিসম্পসদ ক্ষেত্রকে উন্নত করার জন্য বিশেষ অবদান রাখতে পারবে।”

 

About Editor

Check Also

পেঁপে চাষের বৈজ্ঞানিক পদ্ধতি…

পেঁপে বাংলাদেশের একটি অন্যতম প্রধান ফল। কাঁচা পেঁপে সবজি হিসেবে এবং পাকা পেঁপে ফল হিসেবে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *