Sunday , December 16 2018
সর্বশেষ
Home / Uncategorized / হাবিপ্রবি’তে বর্ণাঢ্য আয়োজনে কৃষিবিদ দিবস-২০১৮ উৎযাপন

হাবিপ্রবি’তে বর্ণাঢ্য আয়োজনে কৃষিবিদ দিবস-২০১৮ উৎযাপন

ক্যাম্পাস প্রতিনিধিঃ “বঙ্গবন্ধুর অবদান, কৃষিবিদ ক্লাস ওয়ান” এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আজকে মঙ্গলবার দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের মধ্যদিয়ে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে কৃষিবিদ দিবস ২০১৮ পালিত হয়েছে। কর্মসূচির অংশ হিসেবে সকাল সাড়ে ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর মো. মিজানুর রহমান-এর নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক,আমন্ত্রিত অতিথি, কর্মকর্তা ও ছাত্র-ছাত্রীদর নিয়ে কৃষিবিদ দিবসের র‌্যালি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে।

এর পর দিবসের তাৎপর্যের উপর ভিত্তি করে বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোরিয়াম-২ এ ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা শাখার পরিচালক প্রফেসর ড. মো. তারিকুল ইসলাম-এর সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় মুখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভাইস-চ্যান্সেলর ও বাংলাদেশ পরিকল্পনা কমিশনের সাবেক সদস্য এমিরেটাস প্রফেসর ড. এম এ সাত্তার মন্ডল এবং প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদান করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর মো. মিজানুর রহমান।

দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে উক্ত আলোচনা সভায় মূখ্য আলোচক হিসেবে ড. এম. এ সাত্তার মন্ডল বলেন বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার পরেই ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গঠন করার জন্য গ্রাম ও কৃষি উন্নয়নের নানামূখী পরিকল্পনা হাতে নেন। তিনি তাঁর গঠিত পরিকল্পনা কমিশনে কৃষিবিদদের অর্ন্তভুক্ত করেন। তিনি ১৯৭৩ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি বাকৃবি তে সরকারি চাকুরীতে কৃষিবিদদের প্রথম শ্রেণির মর্যাদার ঘোষণা দেন। ওই দিন তিনি সেখানে উপস্থিত ছিলেন বলে জানান এবং সেদিনের বঙ্গবন্ধুর ভাষণের খুঁটিনাটি সবার মাঝে তুলে ধরেন। প্রফেসর ড. সাত্তার মন্ডল আমেরিকার সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেনরি কিসিন্জারের উদ্বৃতির সমালোচনা করে বলেন বাংলাদেশ এখন আর তলাবিহিন ঝুঁড়ি নেই; জাতির জনকের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত হচ্ছে। আমরা প্রত্যাশা করি উন্নয়নের এ ধারা অব্যাহত থাকলে ২০৪১ সালের আগেই বাংলাদেশ উন্নত দেশে পরিনত হবে।

প্রধান অতিথির সংক্ষিপ্ত বক্তব্য প্রফেসর মোঃ মিজানুর রহমান দেশের উন্নয়নে কৃষি ও কৃষিবিদদের গুরুপ্ত তুলে ধরেন। তিনি বলেন বাংলাদেশের উন্নয়ন সরাসরি কৃষির সাথে জড়িত। এ জন্য বর্তমান সরকার কৃষির উপর বিশেষ গুরুপ্ত দিয়েছে , ফলে জিডিপি বৃদ্ধি পাচ্ছে ও দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

আলোচনা শেষে কৃষির উপর এক কুইক কুইজ পরীক্ষার আয়োজন করা হয়েছে।বিজয়ীদের মাঝে পুরুষ্কার বিতরন করেন প্রফেসর ড. এম এ সাত্তার মন্ডল।

সভাপতির বক্তব্যে প্রফেসর ড. মোঃ তারিকুল ইসলাম সুন্দর ও সুষ্ঠুভাবে সকল অনুষ্ঠান সম্পন্ন হওয়ায় সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন পাশাপাশি তিনি আলোচনা সভায় মূখ্য আলোচক হিসেবে ড. এম. এ সাত্তার মন্ডলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন জরুরী কাজে হাবিপ্রবির উপাচার্য প্রফেসর মুঃ আবুল কাসেম স্যার বাহিরে আছেন , তার সার্বিক সহযোগিতা ও দিকনির্দেশনাতেই আজকের প্রোগ্রাম সফল হয়েছে।
অনুষ্ঠানে অন্যানের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিমেল সায়েন্স অনুষদের ডীন প্রফেসর ডা. মো. ফজলুল হক, সোস্যাল সায়েন্স অ্যান্ড হিউমিনিটিস অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. ফাহিমা খানম, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. মো. সফিউল আলম, প্রক্টর প্রফেসর ড মোঃ খালেদ হোসেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা শাখার সহকারী পরিচালক ড. মো. রাশেদুল ইসলাম।

অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা এবং শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

About Rafy

Check Also

ঝিনাইদহের সাধুহাটিতে ব্রি-ধান ৭১ এর মাঠ দিবস পালিত

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার সাধুহাটি গ্রামে সাধুহাটি ব্লকে সোমবার ব্রি-ধান ৭১ এর মাঠ দিবস পালিত হয়। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *