Thursday , March 21 2019
সর্বশেষ
Home / ক্যাম্পাস / অবশেষে রবিবার সিভাসুতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বহুল প্রতীক্ষিত প্রথম সমাবর্তন

অবশেষে রবিবার সিভাসুতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বহুল প্রতীক্ষিত প্রথম সমাবর্তন

সিভাসু প্রতিবেদকঃ চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রামের খুলশী থানার অন্তর্গত এবং নগরীর “জাকির হোসেন রোড” এ অবস্থিত দেশের একমাত্র বিশেষায়িত ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়। দক্ষ ও যুগোপযোগী ভেটেরিনারিয়ান তৈরি করার নিমিত্তে ১৯৯৫-৯৬ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় চট্টগ্রাম সরকারি ভেটেরিনারি কলেজ । প্রতিষ্ঠানটি ১৯৯৬ সালের জানুয়ারি মাসে ৫০ জন শিক্ষার্থী নিয়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এর “বিজ্ঞান অনুষদ” এর অধীনে যাত্রা শুরু করে। পরবর্তীতে চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের দাবির প্রেক্ষিতে,গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার চট্টগ্রাম সরকারি ভেটেরিনারি কলেজ কে বিশ্ববিদ্যালয়ে রূপান্তরিত করার সিদ্ধান্ত নেন।এরই ধারাবাহিকতায় তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া “২রা ফেব্রুয়ারী,২০০৬” তারিখে চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয় এর উদ্ভোধন করেন।পরবর্তীতে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার  এর এক অধ্যাদেশের মাধ্যমে “২০০৬ সালের ৭ই আগস্ট” চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে তার যাত্রা শুরু করে। প্রথমে বিশ্ববিদ্যালয়টি শুধুমাত্র “ভেটেরিনারি মেডিসিন” অনুষদ নিয়ে যাত্রা শুরু করলেও বর্তমানে “ফুড সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি” ও “মাৎস্যবিজ্ঞান” নামে আরো দুটি অনুষদ সহ মোট তিনটি অনুষদ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়টি তার একাডেমিক কার্যক্রম চালনা করছে। ইতোমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাশ করা গ্রাজুয়েটরা দেশে ও বিদেশে তাদের গৌরবের স্বাক্ষর রেখে চলেছেন।দেশে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি চাকুরীসহ দেশের বাইরেও সিভাসুর গ্রাজুয়েটরা নিজ নিজ অবস্থানে সফলভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। এছাড়া সিভাসুর গ্র‍্যাজুয়েটরা নিজ উদ্যোগে বিভিন্ন ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করে আরো কর্মসংস্থান তৈরি করে যাচ্ছেন যা প্রশংসার দাবিদার।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার এত বছর পার হয়ে গেলেও এখনো পর্যন্ত এ বিশ্ববিদ্যালয়ে কোনো সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হয় নি।তাই সিভাসু গ্রাজুয়েটদের প্রাণের দাবী ছিলো বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠান নিয়ে।অবশেষে সিভাসুর ইতিহাসের প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামী ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ তারিখ রবিবার বিকেল ২:৩০ ঘটিকায়।সমাবর্তন অনুষ্ঠানটি বিশ্ববিদ্যালয়ের খেলার মাঠে অনুষ্ঠিত হবে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় চ্যান্সেলর জনাব মোঃ আবদুল হামিদ প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করতে সদয় সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন। উক্ত সমাবর্তনে “সমাবর্তন বক্তা” হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান (প্রতিমন্ত্রী) প্রফেসর ড. এ. কে. আজাদ চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর আবদুল মান্নান।

বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্যানুসারে প্রথম সমাবর্তনে বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনটি অনুষদ থেকে পাশ করা প্রায় ৬৯২ জন গ্রাজুয়েট রেজিস্ট্রেশন করেছেন।তন্মধ্যে ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের ৪৫১ জন, ফুড সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি অনুষদের ১১৮ জন,  মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের ৬৪ জন গ্রাজুয়েট রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করেছেন এবং ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের ১ম-৫ম ব্যাচের ৫৯ জন এলামনাই হিসেবে আমন্ত্রিত হয়েছেন।

প্রথম সমাবর্তন প্রসঙ্গ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি মেডিসিন অনুষদের প্রথম ব্যাচের ছাত্র ডা. মঞ্জুরুল হক মজুমদার বলেন,”দেড়িতে হলেও প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে বিষয়টি অত্যন্ত আনন্দের।তিনি মনে করেন সমাবর্তন আয়োজনের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রাজুয়েটদের মধ্যে সৌহার্দ্য-সম্প্রীতি আরো দৃঢ় হবে।তার প্রত্যাশা আগামিতে সমাবর্তন অনুষ্ঠানে এত দীর্ঘ বিরতি পরিলক্ষিত হবে না”

সমাবর্তন উপলক্ষে ইতোমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসকে বর্নীল সাজে সজ্জিত করা হয়েছে।বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন প্রথম সমাবর্তনকে ঘিরে তাদের নিরাপত্তা ব্যাবস্থা জোরদার সহ অন্যান্য কার্যক্রম হাতে নিয়েছে।নিরাপত্তা ব্যাবস্থার অংশ হিসেবে সমাবর্তনের দিন রেজিস্ট্রেশন ব্যতীত কেউ ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে পারবে না।শনিবার  রেজিস্ট্রেশনকৃত সকলকে ব্যাগ,গাড়ি স্টিকার এবং খাবার কুপন প্রদান করা হবে। সকলের প্রত্যাশা বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রথম সমাবর্তন সুষ্ঠু ও সুন্দর হবে।

তথ্যসূত্র ঃউইকিপিডিয়া ও বিশ্ববিদ্যালয় ওয়েবসাইট

About Ontohin Sagor

Check Also

শেকৃবি উপাচার্য ও শেকৃবিসাসের শুভেচ্ছা বিনিময়

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক, শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় : শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শেকৃবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. কামাল উদ্দিন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *