Thursday , December 13 2018
সর্বশেষ
Home / ক্যাম্পাস / ফ্যানে ঝুলে বাকৃবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ফ্যানে ঝুলে বাকৃবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

বাকৃবি প্রতিনিধিঃ ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) আতিকুর রহমান খান (২৫) নামের এক শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের শেষ বর্ষের (২০১২-১৩) শিক্ষার্থী ছিলেন। তবে মৃত্যুর কারন জানা যায় নি।

আতিকুর রহমান খান পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ থানার কালীগঞ্জ ইউনিয়নের বাসিন্দা। বাবা মোশাররোফ হোসেন খান এবং মা সুলতানা আশরাফী খানমের দ্বিতীয় পুত্র ছিলেন আতিক।

প্রশাসন ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, শনিবার দুপুর ১২ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হলের ৩৫৭/এ রুমে ওই মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। আরো জানা যায়, শুক্রবার আতিকুর রহমানের ভাই আশিক আরমান খান বাপ্পী ও তার স্ত্রী ক্যাম্পাসে ঘুরতে আসেন। আতিক তার ভাই ও ভাবীকে নিয়ে সেদিন ক্যাম্পাসে ঘোরাঘুরি করেন ও ফেসবুকে রাতে ছবিও আপলোড করেন। শনিবার সকালে আতিকের ভাই আতিককে বার বার ফোন করে না পেয়ে শেষে হলে চলে যান। হলে গিয়ে আতিকের রুম ভেতর থেকে লাগানো দেখেতে পান। এরপর জানালা দিয়ে দেখেন আতিক গলায় দড়ি লাগানো অবস্থায় রুমের মেঝেতে পড়ে আছে। পরে আশেপাশের শিক্ষার্থীদের সহযোগিতায় আতিককে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এসময় হাসপাতালের জরুরী বিভাগের দায়িত্বরত ডাক্তার ফাহমিদা সুলতানা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ময়মনসিংহ কোতোয়ালী থানার ওসি মাহমুদুল হাসান বলেন, মৃত্যুর কারন এখনও জানা যায় নি। তবে লাশ ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে মৃত্যুও কারন জানা যাবে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. মো. আতিকুর রহমান খোকন বলেন, ময়না তদন্তের প্রতিবেদন না পাওয়া পর্যন্ত মৃত্যুর কারণ বলা যাচ্ছে না। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা করা হবেও বলে জানান তিনি।

মো. শাহীন সরদার
বাকৃবি প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ ২২০২।
মোবাইল ০১৭৩৭৭২১৬০৩।

About Editor

Check Also

কারিগরি কর্মকর্তা পদে প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

এগ্রিভিউ২৪ জব ডেস্ক : পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (PKSF) এর সহযোগী সংগঠন প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির নিয়োগ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *