Thursday , December 13 2018
সর্বশেষ
Home / কৃষি বিভাগ / “কৃষি বিপণন ক্যাডার” দাবিতে ৪টি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বয়ে সিকৃবিতে সাধারন সভা

“কৃষি বিপণন ক্যাডার” দাবিতে ৪টি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বয়ে সিকৃবিতে সাধারন সভা

মো: আশিকুর রহমানঃ কৃষি পণ্যের মূল্য স্থিতিশীল রাখার মাধ্যমে উৎপাদক ও ক্রেতাদের স্বার্থ সংরক্ষণ ও সুষ্ঠু বাজার ব্যবস্থাপনার লক্ষ্যে প্রায় ৭৬ বছর আগে কৃষি বিপণন অধিদপ্তর গঠিত হয়। অধিদপ্তরটি সূচনালগ্ন থেকে অযোগ্য ও অদক্ষ জনবলের কারনে অবহেলিত হয়ে আসছে। সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দীর্ঘ অবহেলিত এই অধিদপ্তরের গুরুত্ব উপলব্ধি করেন এবং এই অধিদপ্তরটিকে পুর্ণগঠনের জন্য অধ্যাপক ডঃ মোঃ আব্দুস সাত্তার মন্ডলকে সভাপতি করে ১২ সদস্যের একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করেন। বিশেষজ্ঞ কমিটি এই অধিদপ্তরের কর্মকান্ড সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে ৩৩১৮টি পদ সৃজনের জন্য সুপারিশ করেন। পরবর্তীতে কৃষি মণ্ত্রনালয়ের “পর্যালোচনা কমিটির” মাধ্যমে প্রস্তাবটি সংশোধন করা হয় এবং পুনরায় প্রস্তাবটিকে আন্তঃমন্ত্রনালয় কমিটি মাধ্যমে সংশোধন করে ২০১১ সালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মাধ্যমে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে প্রস্তাবটির ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে মর্মে নীতিগত ভাবে অনুমোদন নেয়া হয়।

কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদনকে উপেক্ষা করে কৃষি বিপণন অধিদপ্তর ষড়যন্ত্রমূলকভাবে উক্ত প্রস্তাবটিকে পরিবর্তন করে পদ সংকোচন ও কৃষির সাথে সম্পর্কযুক্ত নয় এমন সব বিষয় অন্তর্ভুক্ত করেন। কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের এই চক্রান্তমূলক কর্মকান্ড বন্ধের জন্য এবং স্বতন্ত্র বিপণন ক্যডার চালুর জন্য ৩ ফেব্রুয়ারী শনিবার ৪টি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মিলনায়তনে সাধারন সভার আয়োজন করেন।

উক্ত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ কৃষি অর্থনীতি ছাত্রসমিতির আহ্বায়ক ফাইজুল ইসলাম। তিনি বলেন, “বর্তমান সরকার কৃষি বান্ধব সরকার। খুব শীঘ্রই আমাদের ন্যায্য অধিকার স্বতন্ত্র বিপণন ক্যাডার চালু করবেন বলে আমরা আশাবাদী। দেশের কৃষি পণ্যের উর্ধ্বগতি নিয়ন্ত্রনের জন্য কৃষি বিপণন ক্যাডার চালু করা বর্তমানে সময়ের দাবি।”

উক্ত সভায় উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম আহ্বায়কবৃন্দ, মুখপাত্র ও সিকৃবি ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ। উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন মো: রেজাউল কবির সাগর, কোষাধ্যক্ষ, বাংলাদেশ কৃষি অর্থনীতি ছাত্রসমিতি। তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা যেখানে অনুমোদন দিয়েছেন সেখানে কৃষি বিপণন অধিদপ্তর কিভাবে সেই প্রস্তাব পরিবর্তন করে। কৃষকরত্ন শেখ হাসিনা তিনি কৃষকদের নিয়ে ভাবেন। তাই তিনি আমাদের দাবির বাস্তবায়ন করবেন বলে আমি আশা রাখি। সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি উক্ত সভার সমাপ্তি ঘোষনা করেন।

About Editor

Check Also

কারিগরি কর্মকর্তা পদে প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

এগ্রিভিউ২৪ জব ডেস্ক : পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (PKSF) এর সহযোগী সংগঠন প্রয়াস মানবিক উন্নয়ন সোসাইটির নিয়োগ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *