Wednesday , November 21 2018
সর্বশেষ
Home / কৃষি বিভাগ / শরীরের ওজন কমাতে চাইলে…

শরীরের ওজন কমাতে চাইলে…

বাড়তি ওজন নিয়ে চিন্তিত ? খাবার দেখলে নিজেকে কনট্রোল করতে পারছেন না ? ওজন কমানোর জন্য অনেকেরই পরামর্শ নিয়েছেন কিন্তু কাজ হচ্ছে না ?

আমাদের আশে পাশেই ওজন কমানোর জন্য এমন কিছু খাবার রয়েছে যা আমরা জানি না । এই খাবারগুলো আমাদের পেট ভরে রাখে, ফলে স্বাস্থ্যকর খাবার বেশি খেয়ে ফেলার প্রবণতা কমে যায়। এই খাবারগুলো পরিপাকতন্ত্রের ক্রিয়ার গতিবেগ বাড়িয়ে দেয়, ফলে শরীরে জমা ক্যালোরিও চটপট পুড়িয়ে ফেলা যায় এবং আমাদের শরীরে ফ্যাট বা চর্বি জমার সুযোগ থাকে না।

ওজন কমানো ছাড়াও, এই খাবারগুলো খুবই পুষ্টিকর এবং আপনার শরীরের ভিটামিন এবং মিনারেলসের ঘাটতি পূরণ করে। আপনার শরীর ও মনকে সুস্থ এবং চনমনে রাখে। তাছাড়াও, আপনার ত্বকে আরো জ্যোতি আনে, চুলের গোড়া শক্ত করে। জেনে নেওয়া যাক এমন কিছু খাবারের নামঃ

নাশপাতিঃ
আপনি কি জানেন যে নাশপাতিও আপনার ওজন কমিয়ে দিতে পারে? নাশপাতিতে আছে ৬ গ্রাম সলিউবল ফাইবার, যা আপনার কোলেস্টেরল কমায়এবং আপনার ওজন কমাতে সাহায্য করে। একটি নাশপাতিতে থাকে মোটে ১০০ ক্যালোরি, যা কিনা অধিকাংশ ফলেরই ক্যালোরির মাত্রার থেকে কম।

মাঠাতোলা দইঃ
মাঠাতোলা দই এবং দুধ খেয়েও আপনি আপনার ওজন কমাতে পারেন। এই খাবারগুলোও ওজন কমানোর দাওয়াই হিসেবে তেমন গুরুত্ব পায় না। দইয়ে উপস্থিত উপকারী ব্যাক্টেরিয়া সহজে ওজন কমাতে সাহায্য করে। তাছাড়াও দইয়ে থাকে হজমে সহায়ক প্রো্টিন যা তাড়াতাড়ি আপনার শরীরের ক্যালোরি পুড়িয়ে ফেলতে সাহায্য করে।

ব্রাউন রাইস এবং হোল-গ্রেনসঃ
গবেষণায় দেখা গেছে যে ব্রাউন রাইস বা লাল চাল ওজন কমাতে সাহায্য করে, কারণ এতে কার্বোহাইড্রেটের মাত্রা কম থাকে, অথচ ফাইবার বেশি পরিমাণে থাকে। ব্রাউন রাইস এবং হোল-গ্রেনস আ পনার পেট ভরিয়ে রাখে আর সেই কারণে বেশি পরিমাণে খাওয়া হয়ে যায় না, ফলে ওজন কমতে থাকে।

কুমড়োঃ
কুমড়োতে ক্যালোরির মাত্রা থাকে খুবই কম অথচ কুমড়োর পুষ্টিগুণ খুবই বেশি। কুমড়োয় ফাইবারের মাত্রাও বেশ বেশি যা কিনা ওজন কমানোর জন্য সহায়ক।কুমড়ো খেলে অনেকক্ষণ পেটভরা থাকে এবং কুমড়োয় বিটাক্যারোটিনও(এক ধরণের ভিটামিন এ) বেশি মাত্রায় থাকে। ওজন কমানোর জন্য দরকারী এই খাবারটিকেও আমরা অবহেলা করে থাকি।

আপেলঃ
ওজন কমানোর জন্য খাবারগুলোর মধ্যে সেরা হল আপেল। একটি আপেল খাওয়ার পর অনেকক্ষণ আপনার পেট ভরা থাকে এবং আরো বেশি খাওয়ার লোভ এড়ানো সহজ হয়। আপেল আপনার পরিপাকতন্ত্রের ক্রিয়া বাড়িয়ে দিয়ে হজমশক্তি বাড়িয়ে দেয়। আপেল ভিটামিনসমৃদ্ধ এবং ফাইবারের মাত্রাও বেশি। তাই খোসাসহ আপেল খান ওজন কমানোর জন্য।

দারুচিনিঃ
এটি এমন একটি মসলা যা ওজন কমানোর জন্য খুবই উপকারী। আপনি এটি চা হিসেবেও খেতে পারেন অথবা এটি মধুর সঙ্গেও খেতে পারেন। যদি দ্রুত ওজন কমাতে চান, তাহলে অবশ্যই রোজ দারুচিনি খেতে হবে।

জেনেই তো গেলেন কোন খাবার গুলা ওজন কমায় । তাই ওজন কমাতে আজ থেকেই এই খাবারগুলা খেতে পারেন । ও ভালো কথা, ফরমালিন মুক্ত আপেল, নাশপাতি খান । আপেল, নাশপাতি খাবার আগে পানিতে অন্তত ২ ঘন্টা ভিজিয়ে রাখুন, তারপর খান ।

সুস্থ থাকুন…

About Editor

Check Also

ডেইরী শিল্পে সফলতার অপর নাম “কৃষিবিদ ডেইরী ফার্ম”

অনিক অাহমেদ, সাভার, ঢাকা: দেশের ক্রমবর্ধমান মানুষের প্রাণিজ অামিষের চাহিদা পূরণে ব্যাপক ভূমিকা পালন করে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *